রবিবার, ২৩শে জুন, ২০২৪

সর্বশেষ

রুবিয়ালেসের চুমুকাণ্ড,স্প্যানিশ ফুটবলারদের খেলা বয়কটের হুঁশিয়ারি

নারী বিশ্বকাপের ফাইনালের পর জেনিফার এরমাসোকে চুমু খেয়ে বড় বিপাকে পড়েছেন স্প্যানিশ ফুটবল ফেডারেশনের সভাপতি লুইস রুবিয়ালেস। ক্ষমা চেয়েও যে তিনি পার পাচ্ছেন না সেটি অনেকটাই নিশ্চিত। কেননা তার এই ঘটনায় দেশটির প্রধানমন্ত্রীসহ স্পেনের অন্যান্য ফুটবলের সংগঠনগুলো বেশ চটে রয়েছে।
এদিকে মরার ওপর খাঁড়ার ঘা হিসেবে এসেছে স্প্যানিশ ফুটবলারদের খেলা বয়কটের ঘোষণা। রুবিয়ালেস পদে থাকলে খেলা বয়কটের হুঁশিয়ারি দিয়েছেন দেশটির ৮১ ফুটবলার।

ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম দ্য গার্ডিয়ান তাদের এক প্রতিবেদনে এমনটাই জানিয়েছে। যে কারণে ধরেই নেওয়া যাচ্ছে শাস্তির মাত্রাটা বেশ ভালোই হবে রুবিয়ালেসের।

এদিকে সম্প্রতি পেশাদার নারী ফুটবলারদের সংগঠন ফুটপ্রো ইউনিয়ন ও নিজের এজেন্সির মাধ্যমে যৌথ বিবৃতিতে রুবিয়ালেসের শাস্তি দাবি করেছেন জেনিফার। স্প্যানিশ ফুটবল প্রধানের দৃষ্টান্তিমূলক শাস্তি চেয়েছেন স্প্যানিশ এই মিডফিল্ডার।

বিবৃতিতে ৩৩ বছর বয়সী এই ফুটবলার বলেছিলেন, ‘আমার এজেন্সি টিএমজে-এর সঙ্গে মিলে আমার ইউনিয়ন ফুটপ্রো আমার বিষয়টি দেখভাল করছে। সে ঘটনায় তারাই আমার মুখপাত্র হিসেবে কাজ করবে।’

তিনি আরও বলেন, ‘এই ধরনের ঘটনায় কেউ যেন কখনোই শাস্তি না পেয়ে পার পায় এবং এই ধরনের অগ্রহণযোগ্য আচরণ থেকে নারী ফুটবলারদের রক্ষা করতে যেন তাদের শাস্তি দেওয়া হয় ও দৃষ্টান্তমূলক ব্যবস্থা নেওয়া হয়, সেটি নিশ্চিত করতেই আমরা একসঙ্গে কাজ করছি।’

ইতোমধ্যেই রুবিয়ালেসকে তার পদ থেকে সরিয়ে দিতে স্পেনের নারী ফুটবল লিগ ‘লিগা এফ’ কর্তৃপক্ষ দাবি উত্থাপন করেছে। ইতোমধ্যেই তারা এ বিষয়ে দেশটির জাতীয় স্পোর্টস কাউন্সিলের সভাপতির কাছে লিখিত অভিযোগও দায়ের করেছে।

‘লিগা এফ’ কর্তৃপক্ষের দাবি, ‘কোনো সংস্থার প্রধান কোনোভাবেই তার কর্মীকে এভাবে মাথায় আঁকড়ে ধরে মুখে চুমু দিতে পারেন না এবং এটা মেনে নেওয়া যায় না।’

এদিকে রুবিয়ালেসের এমন আচরণে চটেছেন দেশটির প্রধানমন্ত্রীও। ইতোমধ্যেই দেশটির সরকার তাকে বরখাস্তের আইনি প্রক্রিয়াও শুরু করেছে বলে জানা গেছে।

আরও পড়ুন