রবিবার, ২৩শে জুন, ২০২৪

সর্বশেষ

কর্ণফুলী ও হালদা নদীকে বাঁচাতে চট্টগ্রাম বাসীকে এগিয়ে আসতে হবে

নদী বাঁচাও, দেশ বাঁচাও, নদীর দখল ও দূষণ বন্ধ কর -এই প্রতিপাদ্য নিয়ে বিশ্ব নদী দিবস উপলক্ষে বক্তরা বলেন চট্টগ্রামের কর্ণফুলী ও হালদা নদী হলো বাংলাদেশের প্রাণ। পৃথিবীর একমাত্র রুই মাছের প্রজনন কেন্দ্র হলো হালদা নদী, বাংলাদেশর মানুষের খাদ্য মাছের চাহিদা পূরনের প্রধান ভূমিকা রেখে যাচ্ছে হালদা নদী, তেমনি কর্ণফুলী নদী হলো চট্টগ্রাম বন্দরের অর্থনৈতিক চালিকা শক্তি। ৮৫% আয় আসে এই চট্টগ্রাম বন্দর থেকে। কিন্তু দেখা যাচ্ছে এই দু’টো নদীকে রাজনৈতিক ভাবে একশ্রেণির নদী খেকোরা দখল করে নিচ্ছে। নদীর দুই পার যেভাবে দখল হচ্ছে তেমনি পুরো চট্টগ্রামের ময়লা আবর্জনা মলমূত্র এবং পলিথিনে জমাটবদ্ধ হয়ে নদীর তলদেশ সংকীর্ণ হয়ে আসছে। তাই এই প্রাণের নদীকে বাঁচাতে চট্টগ্রাম বাসীকে ঐক্যবদ্ধ হয়ে আন্দোলন করতে হবে এবং নদীর অববাহিকা ফিরিয়ে আনতে হবে। কর্ণফুলী সুরক্ষা পরিষদ সংগঠনের আয়োজনে ২৪ সেপ্টেম্বর (রবিবার) চট্টগ্রাম প্রেসক্লাব প্রাঙ্গণে দুপুর ১২ টায় বিশ্ব নদী দিবস উপলক্ষে সংগঠনটি মানববন্ধন করেন। সংগঠনের সভাপতি ও দৈনিক আমাদের নতুন সময় পত্রিকার ব্যুরো প্রধান কামাল পারভেজ’র সভাপতিত্বে ও সাধারণ সম্পাদক শেখ দিদারুল ইসলাম’র সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে উপস্থিত বক্তব্য রাখেন চট্টগ্রাম মুক্তিযুদ্ধা কমান্ডের ইউনিট কমান্ডার মুক্তিযোদ্ধা মোজাফফর আহমদ, নদী গবেষক প্রফেসর ঈদ্রীস আলী, রাজনৈতিক ব্যক্তিত্ব জাহেদুল আলম, পরিবেশ সংগঠক এম এ হাসেম রাজু, রাজনৈতিক সংগঠক মারুফ হাসান রুমি, সাংবাদিক ওয়াহেদ জামান, ব্যারিস্টার সুলতান আহমদ বিশ্ববিদ্যালয় কলেজের পরিচালনা পর্ষদের সভাপতি জাকের হোসেন খোকন, ফাউন্ডেশনের নির্বাহী পরিচালক লায়ন জাহেদুল করিম বাপ্পি সিকদার,
সাংবাদিক ওচমান জাহাঙ্গীর, সাংবাদিক শেখ আলাউদ্দীন, সাংবাদিক মুজিব উল্লাহ তুষার, সাংবাদিক এম আর আমিন, এসডিজি ইয়ুথ ফোরামের সভাপতি নোমান উল্ল্যাহ্ বাহার,
সাংবাদিক মন্জুরুল ইসলাম মন্জু, ছাত্র নেতা আবু নাসের প্রমুখ।
মানববন্ধন শেষে প্রেসক্লাব প্রাঙ্গণ থেকে র‍্যালী বের হয়ে জামাল খান রোড প্রদক্ষিণ করে প্রেসক্লাব প্রাঙ্গণে ফিরে এসে অনুষ্ঠানের সমাপ্তি করেন।।

আরও পড়ুন