রবিবার, ১৪ই জুলাই, ২০২৪

সর্বশেষ

আমাদের দেশের মানুষ চিকিৎসার জন্য প্রায়ই বাইরের দেশে চলে যাচ্ছে

ভূমিমন্ত্রী সাইফুজ্জামান চৌধুরী জাবেদ বলেছেন, চট্টগ্রাম মা ও শিশু হাসপাতাল চট্টগ্রামবাসীর অবদানে তৈরি হয়েছে। চট্টগ্রামের মানুষ এ হাসপাতালের গর্বিত অংশীদার।
আমি চিকিৎসক এবং পরিচালকদের অনুরোধ করব চিকিৎসাসেবার মান আরও উন্নত করতে এবং রোগীদের যত্ন নিতে। কারণ আমাদের দেশের মানুষ চিকিৎসার জন্য প্রায়ই বাইরের দেশে চলে যাচ্ছে।
কিন্তু আপনারা যদি এখানে ভালো চিকিৎসা নিশ্চিত করতে পারেন তাহলে মানুষ আর বিদেশ যাবে না।

রোববার (৫ নভেম্বর) নগরের আগ্রাবাদে চট্টগ্রাম মা ও শিশু হাসপাতালের ক্যান্সার ইনস্টিটিউট ও রিসার্চ সেন্টারের উদ্বোধন অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্য তিনি এসব কথা বলেন।

দৈনিক আজাদী সম্পাদক এমএ মালেকের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি ছিলেন সংসদ সদস্য এমএ লতিফ, মহিউদ্দিন বাচ্চু, জেলা প্রশাসক আবুল বাসার মোহাম্মদ ফখরুজ্জামান। চট্টগ্রাম মা ও শিশু হাসপাতালের প্রেসিডেন্ট (ভারপ্রাপ্ত) এসএম মোর্শেদ হোসাইন, জেনারেল সেক্রেটারি মোহাম্মদ রেজাউল করিম আজাদ বক্তব্য দেন। এ সময় হাসপাতালের চিকিৎসক, সেবিকা, নার্স ও সাধারণ মানুষ উপস্থিত ছিলেন।

মন্ত্রী বলেন, আমাদের দেশের বাইরে অনেক প্রবাসী ভাই বোন আছেন যারা অনকোলজি বিশেষজ্ঞ। তাঁরা যদি মাঝে মাঝে এসে এখানে রোগীদের সময় এবং পরামর্শ দেন তাহলে হাসপাতালের সুনাম বাড়বে। এখানে রোগীদের স্বল্পব্যয়ে চিকিৎসাসেবার মান নিশ্চিত করতে হবে। কারণ যাদের পয়সা অনেক তারা চিকিৎসার জন্য দেশের বাইরে যেতে পারে কিন্তু অর্থনৈতিকভাবে যারা একটু পিছিয়ে তারা যেন পূর্ণাঙ্গ চিকিৎসাসেবা এখান থেকে পায় সে বিষয়টিকে প্রাধান্য দিতে হবে।

তিনি বলেন, বর্তমান সরকারের বদৌলতে চট্টগ্রাম সবদিকে এগিয়ে। এখানে কিছুদিন আগে বঙ্গবন্ধু টানেল উদ্বোধন করা হয়েছে যা দক্ষিণ-পূর্ব এশিয়ায় প্রথম। ফ্লাইওভারের কাজও শেষ পর্যায়ে। আবার ক্যান্সার হসপিটাল ও রিসার্চ সেন্টার উদ্বোধনের মধ্য দিয়ে চিকিৎসাসেবার দিকদিয়েও এগিয়ে গেছে।

ক্যান্সার রোগীদের জন্য অত্যাধুনিক লিনিয়ার এক্সিলেরাটর মেশিনসহ ক্যান্সারের বিভিন্ন যন্ত্রপাতি স্থাপন করা হয়েছে। রোগীদের জন্য এখানে সর্বাধুনিক সুযোগ সুবিধাসহ আইসিইউ, কেবিন, সাধারণ শয্যাসহ ১১ তলা ভবনের ১০০ শয্যার ব্যবস্থা থাকবে।

আরও পড়ুন