সোমবার, ২৬শে ফেব্রুয়ারি, ২০২৪

সর্বশেষ

খেলার চেয়ে সংঘাতে ব্রাজিলের মনোযোগ বেশি: মেসি

২০২৬ বিশ্বকাপ ফুটবলের বাছাই পর্বে আজ মুখোমুখি হয়েছিল ব্রাজিল ও আর্জেন্টিনা। ক্রিকেটে ভারত-পাকিস্তান আর ফুটবলে আর্জেন্টিনা ও ব্রাজিলের লড়াই দর্শকদের আলাদা উত্তাপ-উত্তেজনা ছড়ায়।

খেলা শুরুর আগেই চিরপ্রতিদ্বন্দ্বী দুই দলের সমর্থকরা গ্যালারিতে দাঙ্গায় জড়ান। পরে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে আর্জেন্টাইন সমর্থকদের ওপর লাঠিচার্জ করে ব্রাজিলিয়ান পুলিশ। শেষ পর্যন্ত আধাঘণ্টা দেরিতে মাঠে গড়ায় ম্যাচ, যেখানে ১-০ গলে জয় তুলে নেন আলবিসেলেস্তেরা। ম্যাচ শেষে উত্তেজনাকর পরিস্থিতি নিয়ে নিজের ক্ষোভ জানিয়েছেন লিওনেল মেসি।

এদিকে খেলা শুরুর আগেই উত্তাপ ছড়িয়েছে দুই চিরপ্রতিদ্বন্দ্বীর আজকের লড়াই। জাতীয় সংগীত গাওয়ার সময় আর্জেন্টাইন সমর্থকদের ওপর চেয়ার ছুড়ে মারেন ব্রাজিলিয়ান সমর্থকরা। একপর্যায়ে তা দাঙ্গায় রূপ নেয়। পরে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে ব্রাজিলিয়ান পুলিশ আলবিসেলেস্তে ভক্তদের ওপর লাঠিচার্জ শুরু করে।

এ সময় নিজ দেশের সমর্থকদের বাঁচাতে ঝাঁপিয়ে পড়েন মেসি, এমিলিয়ানো মার্টিনেজরা। একপর্যায়ে মাঠ ছেড়ে সতীর্থদের নিয়ে সাজঘরে ফিরে যান আলবিসেলেস্তে অধিনায়ক।

এদিকে দুই দলের আজকের ম্যাচেও ছিল উত্তাপ। ব্রাজিল ফুটবলারদের দ্বারা ১৬ বার ফাউলের স্বীকার হয়েছেন মেসিরা। শেষ দিকে সেলেসাও তারকা জোয়েলিনটনকে লালকার্ড দেখান রেফারি। এদিকে ১-০ গোলের জয়ের পর স্বার্বিক পরিস্থিতি নিয়ে কথা বলেছেন মেসি।

তিনি বলেন, ‘আমরা দেখেছি পুলিশ কীভাবে সমর্থকদের ওপর চড়াও হয়েছিল। সেখানে আমাদের পরিবারের সদস্যরাও ছিল। কোপা লিবার্তাদোরেসের সময়ও একই কাণ্ড ঘটিয়েছিল তারা।’

আর্জেন্টাইন অধিনায়ক আরও বলেন, ‘খেলার চেয়ে মাঠের বাইরে সংঘাতের দিকেই ওদের মনোযোগ বেশি। কিন্তু আমরা একটি পরিবার। তাই পরিস্থিতি শান্ত করতেই আমরা মাঠে ফেরার সিদ্ধান্ত নিয়েছি।’

এদিকে ম্যাচ শেষে আরেক আর্জেন্টাইন ফুটবলার রদ্রিগো ডি পল বলেন, ‘আমরা বিশ্বের সব থেকে ভালো দল। আমরা মাঠের খেলায় জবাব দিই।’

আরও পড়ুন