শনিবার, ১৩ই জুলাই, ২০২৪

সর্বশেষ

এবার ১১ প্রতিষ্ঠান ও ৭ ব্যক্তির ওপর পড়ল মার্কিন নিষেধাজ্ঞা

রাশিয়া-ইউক্রেন যুদ্ধে মস্কোকে সহায়তা করাসহ বেলারুশের প্রেসিডেন্ট আলেকসান্দার লুকাশেঙ্কোর নেতৃত্বাধীন সরকারের ওপর চাপ রাখতে নতুন করে নিষেধাজ্ঞা দিয়েছে যুক্তরাষ্ট্র।

স্থানীয় সময় মঙ্গলবার মার্কিন অর্থবিভাগ বা ট্রেজারি ডিপার্টমেন্টের ওয়েবসাইটে প্রকাশিত বিবৃতিতে এমনটি জানানো হয়েছে।

এতে বলা হয়, ইউক্রেন যুদ্ধে রাশিয়ার ঘনিষ্ঠ মিত্র বেলারুশের ১১ প্রতিষ্ঠান ও সাত ব্যক্তির বিরুদ্ধে মার্কিন নিষেধাজ্ঞা আরোপ করা হলো।

ওয়াশিংটনের অভিযোগ, রুশ প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিনের ঘনিষ্ঠ মিত্র লুকাশেঙ্কোর সরকার দেশটির গণতন্ত্রপন্থি বেসামরিক নাগরিক ও সমাজের ওপর দমন-পীড়ন চালাচ্ছে, তার পরিবারের সদস্যরা আর্থিক দুর্নীতিতে জড়িত এবং ইউক্রেনের ওপর রাশিয়ার অন্যায্য যুদ্ধে শুরু থেকেই বেলারুশের সমর্থন ও সামরিক সহায়তা রয়েছে।

আর এসব কর্মকাণ্ডের জন্য লুকাশেঙ্কো সরকারকে জবাবদিহির আওতায় আনতে মার্কিন অর্থ বিভাগের আওতাধীন বিদেশি সম্পদ নিয়ন্ত্রণ কার্যালয় বা ট্রেজারির অফিস অব ফরেন অ্যাসেট কন্ট্রোল থেকে নতুন নিষেধাজ্ঞা ঘোষিত হয়।

একই দিন মার্কিন নিষেধাজ্ঞার আওতায় পড়ে বেলজিয়ামসহ কয়েকটি দেশের ১১ প্রতিষ্ঠান ও সাত ব্যক্তি। রাশিয়ার সামরিক বাহিনী ও ইউক্রেন আক্রমণে সহযোগিতাকারী হিসেবে এদের বিরুদ্ধে অভিযোগ এনেছে যুক্তরাষ্ট্রের অর্থ বিভাগ বা ট্রেজারি ডিপার্টমেন্ট।

অর্থ বিভাগের আওতাধীন অফিস অব ফরেন অ্যাসেট কন্ট্রোল স্থানীয় সময় মঙ্গলবার জানিয়েছে বেলজিয়ামভিত্তিক হ্যান্স দে গিতিরের নেতৃত্বে পরিচালিত নেটওয়ার্কটি এই নিষেধাজ্ঞার লক্ষ্যবস্তু।

এ নেটওয়ার্কের ৯ প্রতিষ্ঠান এবং পাঁচ ব্যক্তি রাশিয়া, বেলজিয়াম, সাইপ্রাস, সুইডেন, হংকং ও নেদারল্যান্ডস জুড়ে কার্যক্রম পরিচালনা করে। তাদের বিরুদ্ধে রাশিয়ার জন্য সামরিক সরঞ্জাম সরবরাহের সঙ্গে জড়িত থাকার অভিযোগ আনা হয়েছে।

আরও পড়ুন