মঙ্গলবার, ৫ই মার্চ, ২০২৪

সর্বশেষ

জাতিসংঘে ফিলিস্তিনের পক্ষে বাংলাদেশের ভোট

ফিলিস্তিনের অবরুদ্ধ গাজা উপত্যকায় ‘অনতিবিলেম্বে যুদ্ধবিরতির আহ্বান জানিয়ে’ শুক্রবার জাতিসংঘের নিরাপত্তা পরিষদে একটি প্রস্তাব উত্থাপিত হয়। তবে এ প্রস্তাবে ভেটো দেয় দখলদার ইসরাইলের মিত্র দেশ যুক্তরাষ্ট্র। ফলে প্রস্তাবটি শেষ পর্যন্ত পাস হয়নি।

জাতিসংঘের মহাসচিব অ্যান্তোরিও গুতেরেস সংস্থাটির ধারা-৯৯ এর ক্ষমতাবলে এ প্রস্তাব উত্থাপন এবং এ নিয়ে আলোচনা করতে নিরাপত্তা পরিষদকে বাধ্য করেন। এ ছাড়া মধ্যপ্রাচ্যের দেশ সংযুক্ত আরব আমিরাতও যুদ্ধবিরতির প্রস্তাব উত্থাপন করে।

শুক্রবার নিরাপত্তা পরিষদে উত্থাপিত এ যুদ্ধবিরতির প্রস্তাবটি গত অক্টোবরে জাতিসংঘ সাধারণ অধিবেশনে পাশ হয়েছে। তখন ফিলিস্তিন ও গাজার পক্ষে অবস্থান নিয়েছে বাংলাদেশ।

জাতিসংঘে নিযুক্ত ফিলিস্তিনের স্থায়ী উপ-পর্যবেক্ষক ও দূত মাজেদ বামইয়া মাইক্রো ব্লগিং সাইট এক্সে (সাবেক টুইটার) জানিয়েছেন, যুদ্ধবিরতির প্রস্তাবে ১০০টিরও বেশি দেশ সমর্থন দিয়েছে। এর মধ্যে বাংলাদেশও রয়েছে।

বাংলাদেশ ছাড়াও যুদ্ধবিরতির পক্ষে অবস্থান নেওয়া অন্য দেশগুলো হলো— আফগানিস্তান, অ্যান্ডোরা, অ্যাঙ্গোলা, অ্যান্টিগা ও বার্বুডা, আর্জেন্টিনা, আজারবাইজান, বাহামাস, বাহরাইন, বার্বাডোজ, বেলারুশ, বেলজিয়াম, বেলিজ, বেনিন, বলিভিয়া, বসনিয়া ও হার্জেগোভিনা, বতসোয়ানা, ব্রাজিল, কম্বোডিয়া, মধ্য আফ্রিকান প্রজাতন্ত্র, চাদ, চিলি, চীন, কলম্বিয়া, কমোরোস, কঙ্গো, কোস্টারিকা, কিউবা, গণপ্রজাতান্ত্রিক কঙ্গো, জিবুতি, ডোমিনিকান রিপাবলিক, মিসর, এল সালভাদর, ইরিত্রিয়া, ইথিওপিয়া, ফিজি, ফিনল্যান্ড, গাম্বিয়া, গ্রেনাডা, গায়ানা, আইসল্যান্ড, ইন্দোনেশিয়া, ইরাক, আয়ারল্যান্ড, জ্যামাইকা, জর্ডান, কাজাখস্তান, কেনিয়া, কুয়েত, কিরগিজস্তান, লাও পিপলস ডেমোক্রেটিক রিপাবলিক, লেবানন, লেসোথো, লিবিয়া, লুক্সেমবার্গ, মালয়েশিয়া, মালদ্বীপ, মাল্টা, মৌরিতানিয়া, মেক্সিকো, মরক্কো, নামিবিয়া, নিউজিল্যান্ড, নিকারাগুয়া, নাইজেরিয়া, নরওয়ে, ওমান, পাকিস্তান, পেরু, ফিলিপাইন, পোল্যান্ড, পর্তুগাল, কাতার, রাশিয়া, সেন্ট কিটস ও নেভিস, সেন্ট লুসিয়া, সেন্ট ভিনসেন্ট ও গ্রেনাডাইন দ্বীপপুঞ্জ, সান মারিনো, সৌদি আরব, সেনেগাল, সিশেলস, সিয়েরা লিওন, সিঙ্গাপুর, স্লোভেনিয়া, সোমালিয়া, দক্ষিণ আফ্রিকা, স্পেন, শ্রীলঙ্কা, সুদান, সুরিনাম, তাজিকিস্তান, থাইল্যান্ড, তিমুর-লেস্তে, ত্রিনিদাদ ও টোবাগো, তুরস্ক, উগান্ডা, সংযুক্ত আরব আমিরাত, উজবেকিস্তান, ভেনিজুয়েলা, ভিয়েতনাম, ইয়েমেন এবং জিম্বাবুয়ে।

গত ৭ অক্টোবর ফিলিস্তিনি সশস্ত্র গোষ্ঠী হামাস ও ইসরাইলের মধ্যে যুদ্ধ শুরু হয়। এ যুদ্ধের শুরু থেকেই গাজায় নির্বিচার বোমা হামলা চালিয়ে যাচ্ছে দখলদার ইসরাইল। তাদের হামলায় গাজায় মানবিক বিপর্যয় দেখা দিয়েছে। এ বিপর্যয় যেন আরও বেশি দূর না যায়; সেজন্য গাজায় তাৎক্ষণিক যুদ্ধবিরতির প্রস্তাব উত্থাপিত হয়েছিল।

আরও পড়ুন