মঙ্গলবার, ৫ই মার্চ, ২০২৪

সর্বশেষ

স্বামীর খোঁজে বাংলাদেশে আসা পাকিস্তানি নারীকে মারধর

বাংলাদেশি স্বামীর খোঁজে হবিগঞ্জের চুনারুঘাটে আসা পাকিস্তানি নারী মাহা বাজোয়াকে (৩০) পেটানোর অভিযোগ উঠেছে। বৃহস্পতিবার সকাল ৭টায় চুনারুঘাটের উত্তর বড়াইল এলাকায় এ ঘটনা ঘটে বলে পাকিস্তানি ওই নারী জানান।

তিনি চুনারুঘাট উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসা নেন এবং মারপিটের ঘটনা সরকারি জরুরি সেবা ৯৯৯ নম্বরে কল দিলে চুনারুঘাট থানা পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে তাকে উদ্ধার করে থানায় নিয়ে আসে।

মাহা বাজোয়ার স্বামীর নাম সাজ্জাদ হোসেন মজুমদার (৩৫)। তিনি বড়াইল এলাকার শফি উল্লাহ মজুমদারের ছেলে।

মাহা জানান, বুধবার রাতে সাজ্জাদ তার দ্বিতীয় স্ত্রীকে নিয়ে বড়াইল এলাকায় বোনের বাড়ি ফিরেছেন জেনে সেখানে গিয়েছিলেন। এতে ক্ষিপ্ত হয়ে সাজ্জাদ ও তার স্বজনরা মাহাকে পিটিয়েছেন। এতে তার শরীরের বিভিন্ন স্থানে রক্তাক্ত জখম হয়েছে।

তিনি বলেন, ৯৯৯ নম্বরে কল দিয়ে পুলিশকে মারপিটের ঘটনা জানিয়ে হাসপাতালে চিকিৎসা নিয়েছি। পরে গিয়েছি মামলা দায়েরের জন্য।

চুনারুঘাট থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) হিল্লোল রায় বলেন, ওই নারীকে মারপিটের খবর পেয়েছি। পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে তদন্ত শুরু করেছে। তদন্তে প্রমাণিত হলে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

এর আগে গত ৮ ডিসেম্বর স্বামীর খোঁজে চুনারুঘাটে আসেন মাহা। সেখানে সাজ্জাদের ভাইয়ের বাড়িতে তিনি অবস্থান নেন। পরবর্তীতে স্বামীর বিরুদ্ধে হবিগঞ্জ আদালতে পৃথক দুটি মামলাও দায়ের করেছেন।

৮ ডিসেম্বর সাজ্জাদের ভাই স্বপন মজুমদার জানিয়েছিলেন, ২০১৪ সালে পাকিস্তানের লাহোরে ওই পাকিস্তানি তরুণীকে বিয়ে করেন সাজ্জাদ। এরপর সাজ্জাদ তাকে বাংলাদেশে নিয়ে আসেন এবং পরে পুনরায় পাকিস্তান চলে যান। সাজ্জাদ ১৭ নভেম্বর পুনরায় দেশে ফেরেন; একই দিনে বাংলাদেশে আসেন মাহাও।

আরও পড়ুন