বুধবার, ২২শে মে, ২০২৪

সর্বশেষ

আনোয়ারা উপজেলার বারশত ইউনিয়নের সাবেক চেয়ারম্যান ইলিয়াছ কাঞ্চন মুক্তির দাবিতে সংবাদ সম্মেলন

আনোয়ারা উপজেলার বারশত ইউনিয়নের সাবেক চেয়ারম্যান ইলিয়াচ কাঞ্চনের মুক্তির দাবিতে সংবাদ সম্মেলন করেছেন উপজেলা বিএনপি। শুধু বিএনপির রাজনীতি করার কারণে আনোয়ারার সবচেয়ে জনপ্রিয় এ চেয়ারম্যানকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে বলেও দাবি করেছেন সংবাদ সম্মেলনকারীরা।
আজ শনিবার ২৩ ডিসেন্বর সকালে চট্টগ্রাম একাডেমি মিলনায়তনে এ সংবাদ সম্মেলনের আয়োজন করা হয়। লিখিত বক্তব্যে পাঠ করেনআনোয়ারা উপজেলা বিএনপি নেতা আহমদুর নূর।
আনোয়ার উপজেলা বিএনপি ও অঙ্গসংগঠনের ব্যানারে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন, আনোয়ারা উপজেলা বিএনপির নেতাদের মধ্যে আহম্মদ নুর, আবু তাহের, ইউসুফ, মো. ছৈয়দ হোসেন, মো. শাহ আলম, আকতার, মাহবুবুর রহমান, নূর নবী, আব্বাস বিন নূর,ম কাশেম, শওকত, শাদি, জসিম, জাহেদ, ওসমান প্রমুখ।
সংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে আনোয়ারা উপজেলা বিএনপি নেতা আবুতাহের বলেন, গত ১৫   ডিসেম্বর নগরীর চান্দগাঁও আবাসিক এলাকা থেকে ইলিয়াছ কাঞ্চন চেয়ারম্যানকে গ্রেপ্তার করে পুলিশ। তার স্ত্রী একজন আইনজীবী। তিনি কোন সন্ত্রাসী কর্মকা-ের সাথে জড়িত ছিল না। তার পরেও তার বিরুদ্ধে তিনটি গাইবি মামলা দেওয়া হয়েছে। শুধুমাত্র ইলিয়াছ কাঞ্চন চেয়ারম্যানের জনপ্রিয়তায় ইষান্বিত হয়ে তাকে এসব মামলা দেয়া হয়।
তিনি বলেন, আনোয়ার আকাশে বাতাসে যখন আওয়ামী লীগ ছাড়া কোন দল ছিলনা, তখন মাত্র ২১ বছর বয়সে তিনি চেয়ারম্যান নির্বাচিত হন। তখন দিনের ভোট রাতে হয়নি। দিনের ভোট দিনে এবং জনগণ ভোট কেন্দ্রে ঘিয়ে তাদের পছন্দের প্রার্থীকে ভোট দিয়ে নির্বাচিত করে। তার অপরাধ তিনি এলাকার মানুষের সেবায় নিয়োজিত। তার অপরাধ তিনি বিএনপি করেন।
সংবাদ সম্মেলনে বক্তারা বলেন, বর্তমানে দেশের এক তৃতীয় অংশ মানুষকে বাড়ি ঘর ছেড়ে বনে জঙ্গলে, এদিক সেদিক বসবাস করতে হচ্ছে। তাদের অপরাধ তারা স্বাধীনতার মহান ঘোষক বহুদলীয় গণতন্ত্রের প্রবক্তা শহীদ জিয়াউর রহমান ও দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়া ও তারুণ্যের অহংকার আগামীর রাষ্ট্র নায়ক তারেক রহমানের দল বিএনপি করে। বিএনপি সমর্থক নেতা-কর্মী শুধু নয়; তাদের মা,বাবা ভাই,বোনও এখন ঘরছাড়া। এই প্রহসন থেকে সবাই মুক্তি চায়।

আরও পড়ুন