বুধবার, ২২শে মে, ২০২৪

সর্বশেষ

শুভ বড়দিন আজ

খ্রিষ্টান সম্প্রদায়ের সবচেয়ে বড় ধর্মীয় উৎসব শুভ বড়দিন (ক্রিসমাস) আজ। খ্রিষ্টধর্মের প্রবর্তক যিশুখ্রিষ্ট এই দিনে বেথলেহেমে জন্মগ্রহণ করেন। সারা বিশ্বের খ্রিষ্টান সম্প্রদায়ের মানুষদের মতো বাংলাদেশের খ্রিষ্টধর্মের অনুসারীরাও ধর্মীয় আচার, প্রার্থনা ও আনন্দ-উৎসবের মাধ্যমে দিনটি উদযাপন করবেন।

বড়দিন উপলক্ষে আজ সরকারি ছুটি। দিনটি উপলক্ষে রাষ্ট্রপতি মো. সাহাবুদ্দিন ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা খ্রিষ্ট ধর্মাবলম্বীদের শুভেচ্ছা জানিয়ে পৃথক বাণী দিয়েছেন।

বড়দিন উদযাপন উপলক্ষে দেশের সব চার্চ ও তারকা হোটেলগুলো ক্রিসমাস ট্রি, রঙিন বাতি, বেলুন আর ফুল দিয়ে সাজানো হয়েছে। পাশাপাশি কেক, পিঠা ও বিশেষ খাবারের আয়োজন থাকবে উৎসব।

এদিকে, বড়দিনের উদযাপন নির্বিঘ্ন করতে নিরাপত্তা জোরদার করেছে ঢাকা মহানগর পুলিশ (ডিএমপি)। প্রতিটি গির্জায় পুলিশ মোতায়েনের পাশাপাশি টহল বাড়ানো হয়েছে। এ ছাড়া গুরুত্বপূর্ণ স্থানে চেকপোস্ট স্থাপন ও গোয়েন্দা কার্যক্রম বাড়িয়েছে পুলিশ।

ডিএমপির উপপুলিশ কমিশনার (মিডিয়া অ্যান্ড পাবলিক রিলেশনস বিভাগ) মো. ফারুক হোসেন বলেন, প্রতিবারের মতো এবারও বড়দিন উৎসবমুখর ও নিরাপদ করতে পুলিশের পক্ষ থেকে সুসংহত নিরাপত্তা পরিকল্পনা গ্রহণ করা হয়েছে।

বড়দিনে নিরাপত্তার জন্য ১৩টি নির্দেশনা দিয়েছে ডিএমপি। এর মধ্যে রয়েছে-রাতে ভিডিও ধারণ করা যায় প্রতিটি গির্জায় এমন সিসি ক্যামেরা স্থাপন, ফুটেজ সংরক্ষণ, গির্জার জন্য নিজস্ব স্বেচ্ছাসেবক নিয়োগ, স্বেচ্ছাসেবকদের আলাদা পোশাক, দৃশ্যমান পরিচয়পত্র ও আর্মব্যান্ড নির্ধারণ। স্বেচ্ছাসেবকদের নামের তালিকা স্থানীয় থানায় পাঠানো এবং থানার কর্মকর্তার উপস্থিতিতে স্বেচ্ছাসেবকদের ব্রিফিংয়ের ব্যবস্থা করতে বলা হয়েছে নির্দেশনায়।

গির্জায় দর্শনার্থীদের ব্যাগ বা পোটলা নিয়ে প্রবেশ না করার অনুরোধ করেছে ডিএমপি। সন্দেহভাজন কিছু দেখলে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীকে জানাতে বলা হয়েছে। আর্চওয়ে গেট স্থাপন এবং মেটাল ডিটেক্টর ব্যবহার করে তল্লাশির ব্যবস্থা করার কথা বলেছে ডিএমপি।

নির্দেশনায়, প্রতিটি গির্জায় অগ্নিনির্বাপক যন্ত্র স্থাপন এবং অগ্নি দুর্ঘটনা এড়াতে প্রয়োজনীয় সতর্কতামূলক ব্যবস্থা নেওয়া, উৎসবে মাদকের ব্যবহার, ফানুস উড়ানো ও আতশবাজি করা থেকে বিরত থাকা; গির্জা ও অনুষ্ঠান এলাকায় পর্যাপ্ত আলোর ব্যবস্থা করা; আবাসিক এলাকায় বাড়ির ছাদ, রেস্টুরেন্ট ও হোটেলে ডিজে পার্টি এবং উচ্চ শব্দে সাউন্ড সিস্টেম ব্যবহার করা থেকে বিরত থাকতে বলেছে ডিএমপি।

আরও পড়ুন