বুধবার, ২২শে মে, ২০২৪

সর্বশেষ

বিশ্বের সবচেয়ে ধনী নারী ফ্রাঁসোয়া বেটেনকোর্ট

বিশ্বের প্রথম নারী হিসেবে ১০ হাজার কোটি ডলার (১০০ বিলিয়ন) সম্পদের মালিক হয়েছেন ফ্রাঁসোয়া বেটেনকোর্ট মেয়ার্স। তিনিই এখন বিশ্বের সবচেয়ে ধনী নারী।

বৃহস্পতিবার ব্লুমবার্গ প্রকাশিত প্রতিবেদনের বরাত দিয়ে এ তথ্য জানিয়েছে বিজনেস ইনসাইডার।

ব্লুমবার্গ বিলিয়নেয়ারের সূচকের হালনাগাদে দেখা যায়, বিশ্বের ১২তম ধনী ব্যক্তি ফ্রাঁসোয়া। তার পেছনে রয়েছেন ভারতীয় ধনকুবের মুকেশ আম্বানি। আগে রয়েছেন লাতিন আমেরিকার ধনকুবের কার্লোস স্লিম।

ফরাসি এই ধনকুবের বিশ্ববিখ্যাত প্রসাধন ব্র্যান্ড লরিয়েলের ভাইস চেয়ারওম্যান। তিনি লরিয়েলের প্রতিষ্ঠাতা ইউজিন শুলারের নাতনি। বর্তমানে প্রতিষ্ঠানটির নিয়ন্ত্রণ ফ্রাঁসোয়ারই হাতে রয়েছে। মার্কিন সম্প্রচারমাধ্যম সিএনএন জানিয়েছে, লরিয়েলের ৩৫ শতাংশ শেয়ারের মালিক ফ্রাঁসোয়া ও তাঁর পরিবারের সদস্যরা।

চলতি বছরে লরিয়েলের বাজারদর ৩৫ শতাংশ বেড়েছে। পুঁজিবাজার বিশেষজ্ঞরা বলছেন, করোনা মহামারির পর এটি একটি রেকর্ড।

ফরাসি ব্যবসায়ী ইউজিন শুলার ১৯০৯ সালে লরিয়েল গ্রুপের প্রতিষ্ঠা করেন। পরে প্রতিষ্ঠানটি উত্তরাধিকারী হন তার মেয়ে লিলিয়ান বেটেনকোর্ট। ২০১৭ সালে লিলিয়ান মারা গেলে উত্তরাধিকারসূত্রে ফ্রাঁসোয়া বেটেনকোর্টের হাতে লরিয়েলের দায়িত্ব চলে আসে। তিনি এখন লরিয়েল গ্রুপের পরিচালনা পর্ষদের ভাইস চেয়ারওম্যান এবং পরিবারিক হোল্ডিং কোম্পানি টেথিসের চেয়ারওম্যান।

লরিয়েল বিশ্বের অন্যতম বৃহত্তম প্রসাধনী কোম্পানি। গত বছর ৪২ বিলিয়ন বা চার হাজার ২০০ কোটি ডলারের পণ্য বিক্রি করেছে লরিয়েল। প্রতিষ্ঠানটির বার্ষিক প্রতিবেদন থেকে এ তথ্য জানা গেছে।

ভ্যানিটি ফেয়ার এক প্রতিবেদনে জানিয়েছে, বাড়িতে পিয়ানো বাজিয়ে ও বই পড়ে অবসর কাটে ফ্রাঁসোয়ার। এ ছাড়া তিনি লেখালেখিও করেন। ইতিমধ্যে দুটি বই প্রকাশিত হয়েছে তার।

বর্তমানে বিশ্বের দ্বিতীয় ধনী নারী হলেন আমেরিকার বিখ্যাত কোম্পানি ওয়ালমার্টের উত্তরাধিকারী অ্যালিস ওয়ালটন। তার সম্পদের পরিমাণ ৭০ বিলিয়ন ডলার।

আরও পড়ুন