শনিবার, ১৩ই জুলাই, ২০২৪

সর্বশেষ

ফের জাতিসংঘের ব্রিফিংয়ে বাংলাদেশের নির্বাচন প্রসঙ্গ

জাতিসংঘের প্রেস ব্রিফিংয়ে ফের উঠে এসেছে বাংলাদেশের নির্বাচন ইস্যু। স্থানীয় সময় সোমবার (১৫ জানুয়ারি) সাংবাদিকের এক প্রশ্নের জবাবে জাতিসংঘ মহাসচিব অ্যান্তোনিও গুতেরেসের মুখপাত্র স্টিফেন ডুজারিক সব ধরনের সহিংসতা প্রত্যাখ্যান, সব মানবাধিকার এবং আইনের শাসনকে সম্মান নিশ্চিত করার আহ্বান জানান।

নির্বাচনের সময় বিএনপির কার্যক্রম নিয়ে প্রশ্ন করা হলে মুখপাত্র স্টিফেন ডুজারিক বলেন, আগে যা বলেছি তা আবারও পুনরাবৃত্তি করব- আমরা দলগুলোকে সব ধরনের সহিংসতা প্রত্যাখ্যান করতে ও সব মানবাধিকার এবং আইনের শাসনকে সম্মান নিশ্চিত করার আহ্বান জানাই।

অপর এক প্রশ্নে নির্বাচনের আগে গণপরিবহনে আগুন দেওয়ার বিষয়ে প্রশ্ন করা হলে তিনি বলেন, আমরা কোনো সহিংসতাকে প্রশ্রয় দিই না তা নির্বিশেষে যেই করুক না কেন।

এর আগে গত ৯ জানুয়ারি সাংবাদিকের এক প্রশ্নের জবাবে স্টিফেন ডুজারিক বাংলাদেশে গণতন্ত্র সুসংহত ও অর্থনৈতিক অগ্রগতির জন্য প্রতিটি মানুষের মানবাধিকার নিয়ে কথা বলেন।

ওইদিন স্টিফেন ডুজারিকের কাছে এক সাংবাদিক জানতে চান- নির্বাচনের নামে শাসকগোষ্ঠীর বেপরোয়া দমনপীড়নের শিকার হচ্ছেন বাংলাদেশের জনগণ। নিষ্পেষিত এবং ভোটাধিকার বঞ্চিত জনগণের পাশে দাঁড়াতে কী ব্যবস্থা নিচ্ছেন জাতিসংঘ মহাসচিব, যেখানে আমরা প্রত্যক্ষ করেছি সপ্তাহান্তে বাংলাদেশে সব বড় রাজনৈতিক দলের ভোট বর্জন, ভোট জালিয়াতি, ভীতি প্রদর্শনের মাধ্যমে একপক্ষীয় ডামি নির্বাচন হয়েছে।

তার এ প্রশ্নের জবাবে স্টিফেন ডুজারিক বলেন, আগেই আমি বলেছি মহাসচিব একেবারে প্রকাশ্যে সব দলের প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন, সব রকম সহিংসতা বন্ধ ও প্রতিটি মানুষের মানবাধিকার নিশ্চিত করতে। একই সঙ্গে প্রতিটি মানুষের আইনি সুবিধা পাওয়ার ক্ষেত্রে পূর্ণাঙ্গ সম্মান নিশ্চিত করতে। বাংলাদেশে গণতন্ত্র সুসংহত এবং অর্থনৈতিক সমৃদ্ধি নিশ্চিত করতে এটা অত্যাবশ্যক। আমরা যেসব সহিংসতা দেখেছি, তাতে অবশ্যই উদ্বিগ্ন মহাসচিব।

আরও পড়ুন