সোমবার, ২৬শে ফেব্রুয়ারি, ২০২৪

সর্বশেষ

বাংলাদেশে প্রবেশ করছে মিয়ানমার সীমান্তরক্ষী বাহিনীর সদস্যরা

মিয়ানমারে মুক্তিকামী বিদ্রোহী গোষ্ঠীর যোদ্ধাদের তোপে এখন পর্যন্ত মিয়ানমার সীমান্তরক্ষী বাহিনীর ৯৫ জন সদস্য অস্ত্রসহ বাংলাদেশে পালিয়ে আসে। যা রোববার পর্যন্ত এর সংখ্যা ছিল ৬৮ জন।

সোমবার (৫ ফেব্রুয়ারী) সকাল পর্যন্ত দেশটির সীমান্তরক্ষী বাহিনী বর্ডার গার্ড পুলিশের (বিজিপি) অন্তত ৯৫ জন সদস্য সীমান্ত পার হয়ে বর্ডার গার্ড বাংলাদেশ (বিজিবি) ক্যাম্পে এসে আশ্রয় নিয়েছেন। বিজিবি’র জনসংযোগ কর্মকর্তা মো. শরীফুল ইসলাম সংবাদমাধ্যমকে এমন তথ্য দেন।

বান্দরবানের নাইক্ষ্যংছড়ি উপজেলার ঘুমধুম সীমান্তের তুমব্রু এলাকায় মিয়ানমারের সেনাবাহিনী ও সশস্ত্র গোষ্ঠীর মধ্যে গোলাগুলিতে দুই বাংলাদেশি গুলিবিদ্ধ হয়েছেন।
আহতদের মধ্যে পবিন্দ্র ধর নামে একজনের অবস্থা আশঙ্কাজনক।

সীমান্ত সড়কে যান চলাচল বন্ধের পাশাপাশি বেশ কয়েকটি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানও বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে। সীমান্তের ওপারের গোলাগুলির শব্দ নাইক্ষ্যংছড়ির তমব্রু, ঘুমধুম, টেকনাফ ও উখিয়ার সীমান্ত লাগোয়া এলাকা থেকে স্পষ্ট শোনা যায়।
এমন পরিস্থিতিতে ঘুমধুম, তুমব্রু, কোনারপাড়া, ভাজাবনিয়া ও বাইশফাঁড়ি এলাকার শত শত পরিবার যে যেদিকে পারছে, নিরাপদ আশ্রয়ে ছুটছে।

আরও পড়ুন