শুক্রবার, ১২ই জুলাই, ২০২৪

সর্বশেষ

ফিল্মে আমার ভবিষ্যৎ নিয়ে দারুণভাবে আশাবাদী : মৌ খান

আগামীকাল মুক্তি পাচ্ছে মৌ খানের দ্বিতীয় ছবি ‘যেমন জামাই তেমন বউ’। এতে ডিপজলের বিপরীতে দেখা যাবে তাকে। এ ছবি ও অন্যান্য সমসাময়িক প্রসঙ্গ নিয়ে মৌ কথা বলেছেন বাংলাদেশ প্রতিদিনের সঙ্গে। সাক্ষাৎকারটি নিয়েছেন- শামছুল হক রাসেল।

কাল মুক্তি পাচ্ছে আপনার দ্বিতীয় ছবি, অনুভূতি…
ভীষণ ভালো লাগা কাজ করছে। প্রথমবারের মতো মনতাজুর রহমান আকবরের মত এত বড় মাপের একজন গুণী নির্মাতা ও অভিনেতা ডিপজলের সঙ্গে কাজ করেছি- এই অনুভূতি ভাষায় প্রকাশ করা সম্ভব না। এমন একটি ছবির নায়িকা হতে পেরে নিজেকে অনেকটাই ভাগ্যবতী মনে করছি। খুবই এক্সাইটেড আমি। সামাজিক ঘরানার এই ছবিটি পরিবার নিয়ে দেখার মত। আশা করি ছবিটি ভালো যাবে।
সমসাময়িক হিরো নয়, কিন্তু ডিপজল। ছবিতে আপনাদের রসায়ন…
এই সময়ের সমসাময়িক অনেক হিরোই ছিল। তবে ডিপজল তাদের থেকে আলাদা। তার মত একজন তারকার সঙ্গে কাজ করতে পেরে আসলেই আমি গর্বিত। এটা বলা যায়, আমার সৌভাগ্য যে তার নায়িকা হয়ে বড়পর্দায় অভিনয় করতে পেরেছি। অনেক বড় বড় নায়িকা তার সঙ্গে কাজ করেছেন। তার মত একজন অভিনেতার সঙ্গে কাজ করা যেকোনো নায়িকার জন্য অনেক বেশি গর্বের। কাজ করতে গিয়ে আমাদের কেমেস্ট্রি বা রসায়ন খুব ভালো ছিল। আশা করি বড়পর্দার দর্শকরা এই রসায়ন খুব উপভোগ করবেন।

‘যেমন জামাই তেমন বউ’ ছবিতে কাজের অভিজ্ঞতা?
তারকা বহুল এই ছবিতে কাজের অভিজ্ঞতা দারুণ ছিল। শুটিংয়ের দিনগুলো খুবই মজার সাথে কেটেছে। তবে ছবিটিতে অভিনয়ের কিছু কিছু জায়গা চ্যালেঞ্জিং ছিল। পারিবারিক ড্রামার সাথে মারপিটের দৃশ্যেও অভিনয় করতে হয়েছে। ক্যারেক্টারটিতে কিছু বিষয় এমন ছিল, যা বাস্তবে কখনো আমি ফেস করিনি। যেমন স্বামী-স্ত্রীর মধ্যে ঝগড়া, যা মারামারি পর্যায়ে চলে যায়। এছাড়া কিছু অ্যাকশান দৃশ্যও ছিল। এর বাইরে যেসব পারিবারিক সিক্যুয়েন্স ছিল, তা উপভোগ করেছি।

ফিল্মপাড়ায় নানা সংকট ও কাঁদা ছোঁড়াছুঁড়ির মধ্যেও ক্যারিয়ার নিয়ে কতটুকু আশাবাদী?
ফিল্মে আমার ভবিষ্যৎ নিয়ে দারুণভাবে আশাবাদী। খেয়াল করে দেখবেন সাম্প্রতিক সময়ে সিনেমা ভালোই যাচ্ছে। ছবি মুক্তির সংখ্যা বাড়ছে, দর্শক হলমুখী হচ্ছে- সব মিলিয়ে একটা পজিটিভ ব্যাপার লক্ষ্য করা যাচ্ছে। এটাও সত্য যে কিছু সংকট রয়েছে। তবে আশা রাখি, ফিল্ম ইন্ডাস্ট্রি খুব দ্রুতই ঘুরে দাঁড়াবে। আর কাঁদা ছোঁড়াছুঁড়ি সবখানেই থাকবে। এর মধ্যে আমাদের কাজের প্রতিও ফোকাস করা উচিত। ভাল ভাল কাজ উপহার দিতে পারলে চলচ্চিত্র এগিয়ে যাবে। তাই বলতে পারেন আমি অনেকটা আশাবাদী।

বড়পর্দার পাশাপাশি ওটিটি এগিয়ে যাচ্ছে, তারকারাও এই মাধ্যমে বেশ সরব। বিষয়টি আপনি কিভাবে দেখছেন?
আমরা অভিনেতারা বড় পর্দা-ছোট পর্দা সবখানেই মানানসই। যে মাধ্যমই হোক দিন শেষে সবাইকে অভিনয়টাই করতে হচ্ছে। তাই আমি এই দুই মাধ্যমকে আলাদাভাবে দেখি না। তবে ব্যক্তিগতভাবে আমি সবসময় চাইবো সিনেমা আরো বেশি এগিয়ে যাক। ওটিটি থাকবে, কিন্তু সিনেমা হলে চলচ্চিত্রের ব্যবসাটা ঠিক থাকুক। এরপর সেটি ওটিটিতে মুক্তি পাক, দর্শক দেখুক- এটা চলবে। ভালো কাজের সুযোগ থাকলে আমিও ওটিটিতে অভিনয় করবো। তবে অবশ্যই বড় পর্দাকে আমি প্রায়োরিটি দিবো।

বর্তমানে কাজের ব্যস্ততা
নির্মাতা মো. আসলামের ‘তবুও প্রেম দামি’ সিনেমার কাজ নিয়ে বর্তমানে ব্যস্ততা যাচ্ছে। সম্প্রতি ড্রামা সিক্যুয়েন্সের শুটিং শেষ করেছি, সামনেই গানের শুটিং করবো। এছাড়া সবকিছু ঠিকঠাক থাকলে ডিপজল ভাইয়ের প্রোডাকশনে আরো এক-দুইটা সিনেমাতে কাজ করার পরিকল্পনা রয়েছে। চিত্রনায়ক সাইমন সাদিকের সঙ্গে একটি সিনেমা সাইন করেছি। দ্রুতই সেই ছবির শুটিং শুরু হবে।

কাল হলে গিয়ে ছবিটি দেখার ইচ্ছা আছে?
অবশ্যই হলে গিয়ে দর্শকদের সঙ্গে ছবিটি দেখার ইচ্ছে রয়েছে। আমার নতুন ছবি নিয়ে দর্শকদের অনুভূতি খুব কাছ থেকে দেখতে চাই। সেক্ষেত্রে হল ভিজিটে যাওয়া হবে। এছাড়া পরিবার নিয়ে সিনেমাটি দেখব।

দর্শক কেন এই ছবিটি দেখবে?
‘যেমন জামাই তেমন বউ’ মূলত পারিবারিক ছবি। আমাদের চারপাশের পরিবারের গল্পই উঠে এসেছে ছবিটিতে। পারিবারিক কলহ ও ভালোবাসার কাহিনী দিয়ে সাজানো হয়েছে ছবির গল্প। বলতে গেলে এটি পারিবারিক শিক্ষামূলক ছবি এটি। সিনেমাটির মাধ্যমে একটু হলেও পারিবারিক সমস্যা থেকে পরিত্রাণের উপায় খুঁজে পাবে দর্শক। বর্তমান সময়ে সামাজিক-পারিবারিক প্রেক্ষাপটের অনেক গুরুত্বপূর্ণ মেসেজ এই সিনেমায় রয়েছে।

আরও পড়ুন