শুক্রবার, ১২ই জুলাই, ২০২৪

সর্বশেষ

দীর্ঘদিন গণতন্ত্র থাকায় উন্নয়নশীল দেশের মর্যাদা পেয়েছি : প্রধানমন্ত্রী

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, ‘দেশে দীর্ঘ সময় ধরে গণতন্ত্র থাকায় আমরা দেশকে একটি উন্নয়নশীল দেশে রূপান্তরিত করতে সক্ষম হয়েছি। গণতন্ত্র ও স্থিতিশীলতা অব্যাহত না থাকলে এ অর্জন সম্ভব হতো না।’
বৃহস্পতিবার (৬ জুলাই) জাতীয় সংসদ ভবনের উত্তর প্লাজায় সংসদ সচিবালয়ের কর্মকর্তাদের জন্য ফিতা কেটে নতুন অফিস উদ্বোধনীতে তিনি এসব কথা বলেন।
প্রধানমন্ত্রী বলেন, আমাদের এ গণতান্ত্রিক ধারাটা কিন্তু দীর্ঘ সংগ্রামের ফসল। এটা সবাইকে মাথায় রাখতে হবে। এটা একদিনে আসেনি। বার বারই আমাদের দেশে নানা রকম সমস্যা সৃষ্টি হয়েছে। কিন্তু সেই ২০০৯ এ সরকার গঠনের পর থেকে আমরা যে একটানা সরকারে থাকতে পেরেছি পাশাপাশি আমাদের গণতান্ত্রিক ধারাটা মজবুত করতে পেরেছি বলেই কিন্তু আজ শুধু পার্লামেন্ট ভবন না, সারাদেশটাই বদলে গেছে।
সংসদের বিভিন্ন উন্নয়ন কাজের কথা উল্লেখ করে তিনি বলেন, ‘একটানা আমরা সরকারে থাকার ফলে পার্লামেন্টকে সুন্দর করে গোছানো গেছে, সাজানো গেছে। জাতীয় সংসদ ভবনের উত্তর প্লাজার নিচতলা সংস্কার করে জাতীয় সংসদ সচিবালয়ের নতুন কার্যালয় তৈরি করা হয়েছে। স্মার্ট বাংলাদেশ আমরা ঘোষণা দিয়েছি। স্মার্ট বাংলাদেশের জন্য স্মার্ট অফিস দরকার। সংসদের এ অফিসটা স্মার্ট অফিস হিসেবে তৈরি হয়েছে। শুধু সংসদ নয়, সমগ্র বাংলাদেশে ব্যাপক উন্নয়ন হয়েছে। কারণ, সরকার ২০০৯ সাল থেকে দেশের গণতান্ত্রিক প্রক্রিয়া বজায় রেখেছে। কাজ করার জন্য একটা সুন্দর পরিবেশ দরকার। সুন্দর পরিবেশে সবাই কাজ করলে কাজের গতিও বাড়ে, কাজের উৎকর্ষ সাধন হয়। ভালো পরিবেশে ভালো চিন্তা হয়। এই নতুন অফিস কাজের জন্য সুবিধাজনক পরিবেশ নিশ্চিত করবে এবং সংসদ সচিবালয়ের কার্যক্রমে গতিশীলতা আনতে সাহায্য করবে।’
সংসদ লাইব্রেরিটিকে অমূল্য আখ্যায়িত করে প্রধানমন্ত্রী ভালো পার্লামেন্টারিয়ান হওয়ার জন্য অতীতের সংসদ অধিবেশনের কার্যবিরণী অধ্যয়নে এখানে কিছু সময় ব্যয় করার জন্য আইন প্রণেতাদের প্রতি আহ্বান জানান। শেখ হাসিনা বলেন, তারা কার্যবিবরণীর উদ্ধৃতি দিয়ে সংসদে বক্তব্য দিতে পারেন।
দেশের প্রকৃত ইতিহাস সবাইকে জানাতে সংসদে একটি আর্কাইভ স্থাপনের উদ্যোগ নেয়ায় প্রধানমন্ত্রী স্পিকারকে ধন্যবাদ জানিয়ে সরকার প্রধান বলেন, বিশ্বখ্যাত স্থপতি লুই ইসাডোর কানের নকশা করা সংসদের মূল নকশা রক্ষায় তাঁর সরকার সর্বোচ্চ অগ্রাধিকার দিয়ে আসছে।
প্রধানমন্ত্রী বলেন, সরকার ৪ লাখ মার্কিন ডলার ব্যয়ে পেনসিলভানিয়া বিশ্ববিদ্যালয় থেকে সংসদের সম্পূর্ণ নকশা সংগ্রহ করেছে।
অনুষ্ঠানস্থলে পৌঁছে ফিতা কেটে নতুন এ কার্যালয় উদ্বোধন করেন প্রধানমন্ত্রী। পরে তিনি অফিসের বিভিন্ন অংশ ঘুরে দেখেন। এ সময় শেখ হাসিনাকে ফুল দিয়ে স্বাগত জানান জাতীয় সংসদের স্পিকার ড. শিরীন শারমিন চৌধুরী, সংসদ উপনেতা মতিয়া চৌধুরীসহ মন্ত্রিপরিষদ সদস্য, ডেপুটি স্পিকার, চিফ হুইফ, হুইপরা। এ সময় সংসদ সদস্যরা উপস্থিত ছিলেন।
অনুষ্ঠানে স্পিকার ড. শিরীন শারমিন চৌধুরী বলেন, ‘আগামী অক্টোবরের মধ্যে সংসদে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জীবন, কর্ম ও সংগ্রাম এবং মহান মুক্তিযুদ্ধের ওপর একটি আর্কাইভ নির্মাণ করা হবে।’

আরও পড়ুন