শুক্রবার, ১২ই জুলাই, ২০২৪

সর্বশেষ

আওয়ামীলীগ গণতন্ত্র ও সুষ্ঠু নির্বাচনকে ভয় পায়-শামীম

বিএনপির কেন্দ্রীয় কমিটির সাংগঠনিক সম্পাদক মাহবুবের রহমান শামীম বলেছেন, বর্তমান সরকার অবৈধ ভাবে ক্ষমতায় আসার পর থেকে দেশের গণতন্ত্রকে হত্যা করেছে। অর্থনীতি ও বিচার ব্যবস্থাকে ধ্বংস করেছে। আওয়ামীলীগ গণতন্ত্র ও সুষ্ঠু নির্বাচনকে ভয় পায়। তাই গণতন্ত্র পুনরুদ্ধারে বিএনপি এদেশের মানুষের ১০ দফা দাবি উত্থাপন করেছে। এই দাবি উত্থাপন করার পর দেশপ্রেমিক জনগণ সেগুলোকে সমর্থন করেছে। এই দাবী আদায়ে আমরা যুগপৎ আন্দোলনের জন্য প্রস্তুতি গ্রহণ করেছি। এই সরকারের পদত্যাগ, সংসদ বাতিল এবং নির্দলীয় তত্ত্ববধায়ক সরকারের মাধ্যমে নির্বাচনের দাবিতে অতীতে বিভাগীয় গণসমাবেশগুলো চট্টগ্রাম থেকে সফলভাবে শেষ হয়েছিল। তেমনিভাবে আগামী ১৬ জুলাই দেশ বাচাতে মেহনতি শ্রমিক জনতার মহাসমাবেশ জনসমুদ্রে রূপান্তর হবে।

তিনি গণতন্ত্র পুনরুদ্ধারে আগামী ১৬ জুলাই চট্টগ্রামের শ্রমিক জনতার মহাসমাবেশ সফল করার আহবান জানান।

তিনি বৃহস্পতিবার (৬ জুলাই) বিকালে দোস্ত বিল্ডিংস্থ দলীয় কার্যালয়ে আগামী ১৬ জুলাই কেন্দ্রীয় বিএনপি ঘোষিত চট্টগ্রাম বিভাগীয় শ্রমিক জনতার মহাসমাবেশ সফল করার লক্ষে চট্টগ্রাম দক্ষিণ জেলা বিএনপির প্রস্ততি সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে এসব কথা বলেন।

তিনি বলেন, আওয়ামী লীগ প্রতিটি সেক্টরে লুটপাট কায়েম করেছে। মানুষের অধিকার কেড়ে নিয়েছে। গণমাধ্যমের অধিকার ও মতপ্রকাশের স্বাধীনতাকে হরণ করেছে। ডিজিটাল বাংলাদেশের নামে ডিজিটাল দূর্নীতি করে দেশকে অর্থনৈতিকভাবে পঙ্গু করে ফেলেছে। এই স্বৈরাচারের হাত থেকে দেশ ও জাতিকে রক্ষা করার জন্য মেহনতি শ্রমিক জনতাকে জেগে উঠতে হবে।

সভাপতির বক্তব্যে চট্টগ্রাম দক্ষিণ জেলা বিএনপির আহবায়ক আবু সুফিয়ান বলেন, বর্তমান সরকারের পদত্যাগ, সংসদ বিলুপ্ত এবং সেই সঙ্গে নিরপেক্ষ সরকারের অধীনে নির্বাচন অনুষ্ঠানই বিএনপির একমাত্র লক্ষ্য। এ লক্ষ্যে আগামীতে সরকার হটানোর যে আন্দোলন হবে সেটা হবে চূড়ান্ত পর্যায়ের আন্দোলন। এই আন্দোলন দেশের সমস্ত মানুষ সম্পৃক্ত হবে এবং জনগণ তাদের অধিকার আদায় করে নেবে। তাই আগামী ১৬ জুলাই চট্টগ্রাম বিভাগীয় শ্রমিক জনতার মহা সমাবেশ মাইলফলক হয়ে থাকবে।

দক্ষিণ জেলা বিএনপির সি. যুগ্ম আহবায়ক এনামুল হক এনাম বলেন, বর্তমানে দেশের অর্থনীতিতে এবং জনজীবনে তীব্র সংকট চলছে। নিত্য প্রয়োজনীয় দ্রব্য মূল্যের চরম ঊর্ধ্বগতিতে মানুষের নাভিশ্বাস উঠেছে। জনগণের জীবন যাত্রার ব্যয় লাগামহীনভাবে বৃদ্ধি পেয়েছে। তাই এই সরকারের পতন আন্দোলনে সবাইকে রাজপথে নেমে আসতে হবে।

চট্টগ্রাম দক্ষিণ জেলা বিএনপির আহবায়ক আবু সুফিয়ানের সভাপতিত্বে ও সি. যুগ্ম আহবায়ক এনামুল হক এনামের পরিচালনায় বক্তব্য রাখেন জেলা বিএনপির আহ্বায়ক কমিটির সদস্য মোশাররফ হোসেন, বদরুল খায়ের চৌধুরী, এম মন্জুর উদ্দীন চৌধুরী, এস এম মামুন মিয়া, নাজমুল মোস্তফা আমিন, আজিজুল হক, জহিরুল ইসলাম চৌধুরী আলমগীর, মোস্তাফিজুর রহমান, আবু মো. নিপার, এড. ফৌজুল আমিন চৌধুরী, খোরশেদ আলম, মফজল আহমদ চৌধুরী, ভিপি মোজাম্মেল হক, মেজবাহ উদ্দিন চৌধুরী জাহেদ, হাজী মো. রফিক, ইসহাক চৌধুরী, হামিদুল হক মান্নান চেয়ারম্যান, এহসানুল মাওলা, নুরুল কবির, মঈনুল আলম ছোটন, শফিকুল ইসলাম, এস এম সলিম উদ্দীন খোকন, জেলা যুবদলের সভাপতি মোহাম্মদ শাহজাহান, উপজেলা ও পৌরসভা বিএনপি নেতা গাজী আবু তাহের, হাজী মো. ওসমান, ডা. ফয়সাল, মিশকাতুল ইসলাম চৌধুরী পাপ্পা, মো. শাহাজান চেয়ারম্যান, তৌহিদুল আলম, এড. শওকত উছমান, জেলা শ্রমিক দলের সভাপতি শফিকুল ইসলাম, সাধারণ সম্পাদক ডা. মহসিন খাঁন তরুন, সহ সভাপতি মো. সোলাইমান, জেলা স্বেচ্ছাসেবক দলের সদস্য সচিব জমির উদ্দীন চৌধুরী মানিক, জেলা ছাত্রদলের সাবেক সাধারণ সম্পাদক মো. মহসিন, জেলা মহিলাদল নেত্রী উম্মে মিজান চৌধুরী শামীমা, ফাতেমা আক্তার মুন্নি, শারাবান তাহুরা, হালিমা বেগম প্রমূখ।

আরও পড়ুন