রবিবার, ১৪ই জুলাই, ২০২৪

সর্বশেষ

রাতে বেরিয়েছিলেন হাঁটতে, সকালে পুকুরে মিলল আ. লীগ নেতার মরদেহ

কিশোরগঞ্জে নিজ বাসার অদূরে পুকুর থেকে এক আওয়ামী লীগ নেতার মরদেহ উদ্ধার করা হয়েছে। আজ রোববার সকাল ৯টার দিকে শহরের চর শোলাকিয়া এলাকার ব্যাপারী বাড়ির পুকুর থেকে তার মরদেহটি উদ্ধার করা হয়।

নিহত নেতার নাম- বাদল রহমান (৬৩)। তিনি কিশোরগঞ্জ জেলা আওয়ামী লীগের শিল্প ও বাণিজ্য বিষয়ক সম্পাদক এবং চেম্বার অব কমার্স অ্যান্ড ইন্ডাস্ট্রির সাবেক সভাপতি।

কিশোরগঞ্জের পুলিশ সুপার মোহাম্মদ রাসেল শেখ ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন। তিনি জানান, অস্বাভাবিক বিষয়টা মাথায় রেখে তদন্ত করা হচ্ছে। মরদেহ উদ্ধার করে কিশোরগঞ্জ ২৫০ শয্যা জেনারেল হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।

জানা গেছে, গতকাল শনিবার রাত ৮টার দিকে বাদল বাসা থেকে হাঁটতে বের হয়ে আর ফেরেননি। রোববার সকালে শহরের চর শোলাকিয়া এলাকার ব্যাপারী বাড়ির পুকুরে একটি মরদেহ ভাসমান অবস্থায় দেখতে পায় এলাকাবাসী। পরে তারা পুলিশকে খবর দেয়।

খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে ভাসমান মরদেহটি উদ্ধারের পর দেখেন আওয়ামী লীগ নেতা বাদল রহমানের। পরে পুলিশ মরদেহ কিশোরগঞ্জ মডেল থানায় নিয়ে আসে।

নিহত বাদলের বড় ভাই আতাউর রহমান খান মিলন জানান, তার ভাইকে হত্যা করে পুকুরে ফেলে দেওয়া হয়েছে। তিনি এর সুষ্ঠু বিচার দাবি করেন।

এ ঘটনার খবরে জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ আবুল কালাম আজাদ ও পুলিশ সুপার মোহাম্মদ রাসেল শেখ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন।

আরও পড়ুন